1. editor@jagratajanata24.com : editor :
  2. info@holyit.net : jjanata24 :
  3. admin@gmail.com : newsjjanata24 :
মির্জাগঞ্জে নারীকে দিয়ে ব্যবসায়ীকে ফাঁদে ফেলে চাঁদা আদায় \ গ্রেফতার-১ - জাগ্রত জনতা ২৪
সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০৬:০৮ পূর্বাহ্ন
হেড লাইন :
গলাচিপা পৌরসভার রাস্তায় বেড়া, ঘরবন্দী কয়েকটি পরিবার জামালপুরে সাংবাদিকের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা, হত্যার হুমকি আড়পাঙ্গাশিয়া ব্রিজের মেরামত ও সংস্কার কাজ পরিদর্শন করেন ইউএনও রাতের আধারে উপজেলা পরিষদের অভ্যন্তরের অর্ধশত বছরের একটি মেহগনি গাছ উধাও চাল কেলেঙ্কারীতে অভিযুক্ত ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান গ্রেফতার নিজ দোকানের সামনে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা গলাচিপায় মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার নির্মিত ঘর পরিদর্শন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাংবাদিকরা হলেন জাতির বিবেক, সমাজের দর্পণ …কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সোহাগ কুয়াকাটায় মাইকিং করে দর্শনার্থীদের ফেরৎ পাঠালেন ট্যুরিস্ট পুলিশ

মির্জাগঞ্জে নারীকে দিয়ে ব্যবসায়ীকে ফাঁদে ফেলে চাঁদা আদায় \ গ্রেফতার-১

  • সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২০
  • ২৮৫ বার পঠিত

মোঃ রফিকুল ইসলাম, সাদ্দাম,মির্জাগঞ্জ(পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে এক নারীকে দিয়ে ব্যবসায়ীকে ফাঁদে ফেলে চাঁদা আদায়ের অভিযোগে মোঃ সোহেল সিকদার (৩৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে মির্জাগঞ্জ থানা পুলিশ।

গত শনিবার বিকালে ভুক্তভোগী ঐ ব্যবসায়ীর দায়ের করা মামলায় ঐদিন রাতে উপজেলার কাঁঠালতলী বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ৭ই অক্টোবর রাতে উপজেলার কাঁঠালতলী বাজারের মুদি ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলী মৃধা দোকানের বেঁচাকেনা শেষ করে বাড়ী যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হলে একই এলাকার সোহেল সিকদার তার নিজস্ব মোটরসাইকেলে তাকে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কথা বললে সোহেল সিকদারের মোটরসাইকেলে এক নারীকে দেখে তিনি (ব্যবসায়ী) মোটরসাইকেলে যেতে অস্বীকৃতি জানান। এসময় সোহেল সিকদার তার সাথে থাকা নারীকে স্ত্রী পরিচয় দিয়ে কোন সমস্যা নেই বলে কৌশলে ব্যবসায়ীকে মোটরসাইকেলে উঠিয়ে বাড়ীর দিকে রওয়ানা হন।

পথিমধ্যে নির্জন স্থানে (রামপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় এর সামনে) গিয়ে সোহেল সিকদার মোটরসাইকেল থামিয়ে ওই নারী ও ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলী মৃধাকে নামিয়ে দিয়ে তাদেরকে দাঁড়িয়ে থাকতে বলে সোহেল সিকদার মোবাইল ফোনে কথা বলে একই এলাকার মোঃ মোনাসেফ আলী খাঁনের ছেলে বশির খান (৩৭) ও মির্জাগঞ্জ থানা পুলিশের এস.আই পরিচয়ে এক ব্যক্তিকে ঘটনাস্থলে নিয়ে আসে।

এসময় ব্যবসায়ীর সাথে ঐ নারীর অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ তুলে কথিত এস.আই ব্যবসায়ীকে মারধর করে নারীর সাথে একত্রে দাড় করিয়ে ছবি তুলতে বাধ্য করে এবং বশির খান ও সোহেল সিকদার নাটকীয়ভাবে ওই ব্যবসায়ীকে ফাঁদে ফেলে।

এক পর্যায়ে কথিত এসআই ব্যবসায়ীকে থানায় নিয়ে যাবে না এবং মামলাও দিবে না বলে ব্যবসায়ীর নিকট এক লক্ষ টাকা দাবি করে এবং ব্যবসায়ীর সাথে থাকা ১০ হাজার টাকা নিয়ে যায়। পরেরদিন সকালে বশির খান ব্যবসায়ীর দোকানে গিয়ে কথিত এস আই’র দাবীকৃত বাকী টাকা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে না দিলে এবং এ ঘটনাটি কাউকে জানালে প্রাণনাশের হুমকি দেন। এক পর্যায়ে বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকায় এ নিয়ে চা ল্যের সৃষ্টি হয় ।

পরে গত শনিবার ভুক্তভোগী ঐ ব্যবসায়ী সোহেল সিকদারসহ ৩জনের নাম উল্লেখ করে ৪/৫জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে মির্জাগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মির্জাগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম.আর শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, নারীকে দিয়ে ব্যবসায়ীকে ফাঁসানোর মামলার প্রধান আসামি সোহেল সিকদারকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এ জাতীয় আরো খবর
Developed by
error: Content is protected !!