1. editor@jagratajanata24.com : editor :
  2. info@holyit.net : jjanata24 :
  3. admin@gmail.com : newsjjanata24 :
অর্থ আত্মসাৎ ও প্রতারনার মামলায় প্রধান শিক্ষক কারাগাড়ে - জাগ্রত জনতা ২৪
শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১২:০০ পূর্বাহ্ন
হেড লাইন :
দশমিনায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা যান্ত্রিক ত্রুটি।পুড়ে গেছে বরগুনার ইপিআই ভবনের দু’টি ফ্রীজ। তদন্ত কমিটি গঠন। আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কলাপাড়ায় ছাত্রলীগ নেতার ডান হাতের কব্জি কর্তন বান্দরবানে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, পানিবন্দী ৫০ হাজার মানুষ সুন্দরী ফলে ছেয়ে গেছে কুয়াকাটার সৈকত আমতলীতে করোনায় অজ্ঞাত এক যুবক ও এক বৃদ্ধার মৃত্যু সাগরের বড় বড় ঢেউ তীরে এসে আছড়ে পড়ছে। পোতাশ্রয় নিয়েছে শিববাড়িয়া নদীতে শত শত মাছ ধরা ট্রলার টমটম দুর্ঘটনায় আহত পরিবারকে দশমিনায় আর্থিক সহায়তা প্রদান নিজের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে অনুদান দিলেন চেয়ারম্যান জাফর ইকবাল লকডাউনের ৭ম দিনে ব্যাপক তৎপর গলাচিপা উপজেলা প্রশাসন

অর্থ আত্মসাৎ ও প্রতারনার মামলায় প্রধান শিক্ষক কারাগাড়ে

  • সর্বশেষ আপডেট : রবিবার, ২৭ জুন, ২০২১
  • ৫৭ বার পঠিত

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধিঃ

অর্থ আত্মসাৎ ও প্রতারনার মামলায় পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় খেপুপাড়া সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুর রহিমকে কারাগারে প্রেরনের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

 

রবিবার (২৭ জুন) বিজ্ঞ উপজেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত তার জামিন আবেদন নাকচ করে তাকে কারাগারে প্রেরনের এ আদেশ প্রদান করেন। একই আদেশে বিজ্ঞ আদালত মামলার অপর দু’আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করেছেন বলে জানা গেছে।

এর আগে আবদুর রহিম অর্থ আত্মসাৎ ও প্রতারনার মামলায় ১৭ ডিসেম্বর ২০২০ বাদীর সাথে আপোষ শর্তে বিজ্ঞ আদালতের অনুকম্পায় জামিন লাভ করেন। দীর্ঘদিনেও বাদীর সাথে আপোষ না করায় রবিবার মামলার ধার্য তারিখে মামলাটি কার্য তালিকায় এলে বিজ্ঞ আদালত তার জামিন আবেদন নাকচ করে তাকে কারাগারে প্রেরনের আদেশ দেন।

প্রসংগত, প্রধান শিক্ষক আবদুর রহিম, তার ভাই ফারুক ও ভাতিজা হালিম সহ পরিবারের ৫ জন কুয়াকাটার ব্যবসায়ী মিলন হাওলাদার ও তার ব্যবসায়ী বন্ধু আবদুস সোবাহান’র নিকট থেকে ২০ আগষ্ট ২০১৬ লতাচাপলী মৌজার ৪০ শতাংশ জমি বিক্রয়ের জন্য ৩০০ টাকার নন জুডিসিয়াল ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে ১৩ লক্ষ টাকা গ্রহন করেন। এরপর দীর্ঘদিনেও বাদীর পাওনা টাকা ও তার অনুকূলে উক্ত পরিমান সম্পত্তির দলিল রেজিষ্ট্রী করে না দেয়ায় বাদী মহিপুর থানা পুলিশ ও স্কুল পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি কলাপাড়া ইউএনও কে বিষয়টি জ্ঞাত করার পরও কোন ফয়সালা না পাওয়ায় ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করেন।

 

এরপর বিজ্ঞ আদালত মামলার অভিযোগের বিষয়ে কলাপাড়া সহকারী কমিশনার (ভ‚মি)কে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। তদন্ত প্রতিবেদনে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় ১৪ ডিসেম্বর ২০২০ বিজ্ঞ আদালত আ: রহিম সহ তিন জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারী করেন।

এ জাতীয় আরো খবর
Developed by
error: Content is protected !!