1. editor@jagratajanata24.com : editor :
  2. info@holyit.net : jjanata24 :
  3. admin@gmail.com : newsjjanata24 :
ডিজিটাল বাংলাদেশের রুপকার সজীব ওয়াজেদ জয়ের আজ জন্মদিন - জাগ্রত জনতা ২৪
মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৮:২৬ অপরাহ্ন
হেড লাইন :
লোহালিয়া ইউনিয়নের জনগণ ঝাড়ু মিছিল করেন নৌকার প্রার্থী কবির হোসেন তালুকদারে বিরুদ্ধে লোহালিয়া ইউনিয়নে আনারস মার্কার প্রচার- প্রচারণার মধ্যে প্রার্থি ও কর্মীদের উপর হামলা আমতলীতে সাংবাদিককে জীবন নাশের হুমকি থানায় সাধারণ ডায়েরী জাতীয় শ্রমিক লীগ এর ৫২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বরগুনায় আগাম প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত বরগুনায় পিটিয়ে জখমের পর দুই পায়ের ‘রগ কর্তন’ প্রধানমন্ত্রীর ৭৫তম জন্মদিনে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন এ্যাড. মির্জা হুমায়ুন কবির বাচ্চু বরগুনায় মোটরসাইকেলসহ চোর চক্রের দু’জন আটক লিগ্যাল নোটিশ বরগুনা গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে গাঁজা সহ রাসেল নামের এক যুবক আটক জাতীয় শ্রমিক লীগের বরগুনা পৌর কমিটি ঘোষণা 

ডিজিটাল বাংলাদেশের রুপকার সজীব ওয়াজেদ জয়ের আজ জন্মদিন

  • সর্বশেষ আপডেট : মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই, ২০২১
  • ২৭ বার পঠিত

অলিউল্লাহ ইমরান, বরগুনাঃ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের দৌহিত্র এবং আওয়ামী লীগ সভাপতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পূএ সজীব ওয়াজেদ জয়ের আজ ৫১তম জন্মদিন। ১৯৭১ সালের ২৭শে জুলাই ঢাকায় বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী ডঃ এম এ ওয়াজেদ মিয়া ও শেখ হাসিনা দম্পতির ঘরে জন্ম নেন তিনি। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর নানা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান তার নাম রাখেন ‘ জয় ‘ ।

১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট বঙ্গবন্ধু স্বপরিবারে নিহত হওয়ার সময় মা ও বাবার সাথে জার্মানিতে ছিলেন জয়। তার পর জার্মানি ও লন্ডন হয়ে ভারতে মায়ের সাথে রাজনৈতিক আশ্রয় গ্রহণ করেন। ফলে তার শৈশব ও কৈশর কেটেছে ভারতে।

ব্যাঙ্গালুরের নৈনতালের সেন্ট জোসেফ কলেজ হতে স্নাতক পাশের পর যুক্তরাষ্ট্রের ” দ্য ইউনিভার্সিটি অফ টেক্সাস এ্যট আর্লিংটন ” থেকে কম্পিউটার বিজ্ঞানে স্নাতক শেষ করেন। পরবর্তীতে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লোকপ্রশাসনে ডিগ্রি অর্জন করেন।

 

 

সজীব ওয়াজেদ জয় তরুণ, উচ্চ শিক্ষিত, মেধাবী ও ভিশনারী লিডার। বর্তমানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি পরামর্শক হিসেবে কাজ করছেন। বঙ্গবন্ধুর মত প্রচন্ডতা, পরিশ্রমী, সাহসী ও তারুণ্যের প্রানময়তা তার মধ্যে লক্ষ্য করা গেছে।

সজীব ওয়াজেদ জয় একদিন তরুণদের যে স্বপ্নের কথা বলেছিলেন তা আজ ব্যস্তবে রুপ নিতে শুরু করেছে। তাই তিনি যুবসমাজের কাছে আলোকবর্তিকা হিসাবেই আবির্ভূত।

সক্রিয় ভাবে তিনি মাঠের রাজনীতিতে না থাকলেও দল ও দেশের কল্যাণে ভুমিকা রাখছেন বহু আগে থেকেই।

২০১০ সালের ২৫শে ফেব্রুয়ারী জয় কে পিতৃভূমি রংপুর থেকে আওয়ামী লীগের সদস্য পদ দেয়া হয়। ২০০৮ সালে তার মা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে সামরিক তত্বাবধায়ক সরকারের কারাগার থেকে মুক্ত করে আনার ক্ষেএে তার অবদান ছিল গুরুত্বপূর্ণ।

দেশের মধ্যে একসময় যারা দূর্নীতি ও নাশকতার পৃষ্ঠপোষকতা করতো তাদের মসনদ কেঁপে উঠেছিলো তার দেশ কল্যাণ মুলক কর্মকাণ্ডের ফলে।

২০০৮ সালের ২৯শে ডিসেম্বরের জাতীয় সংসদ নির্বচনে আওয়ামী লীগের ইশতেহারে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার যে স্লোগান যুক্ত করা হয় তার নেপথ্যে ছিলেন জয়। পরবর্তী সময় পর্দার অন্তরালে থেকে গোটা দেশে তথ্য প্রযুক্তির বিপ্লব ঘটান এই তথ্য প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ ।

২০১৪ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি এ্যাডভাইজার ( অবৈতনিক ) হিসাবে নিয়োগ পান তিনি এবং সে থেকে এই পদে নিরলস দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন। বর্তমানে তিনি দলীয় কর্মকাণ্ড ছাড়াও তথ্য প্রযুক্তি, রাজনীতি, সামাজিক অর্থনীতি, শিক্ষা বিষয়ক বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তরুণ উদ্যোক্তা তৈরীতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে যাচ্ছেন।

দেশ গঠনে তরুনদের মতামত ও পরামর্শ শুনতে তার ” লেটস্ টক ” ও ” পলিসি ক্যাফে ” দুটি প্রগ্াম ইতিমধ্যে বেশ সাড়া ফেলেছে। তাছাড়া তরুণ উদ্যোক্তা ও তরুণ নেতৃত্বকে একসঙ্গে যুক্ত করার পাশাপাশি প্রশিক্ষিত করতে তরুনদের বৃহত্তর প্লাটফরম ” ইয়ং বাংলা সুচনা করেন।

মেধাবী এই প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞের কল্যাণে দেশে আজ প্রায় ১২ কোটি মানুষ কোনাকোন ভাবে ইন্টারনেটের সাথে যুক্ত। দেশের বিপিও খাত এখন ১০০ মিলিয়ন ডলার রপ্তানি করছে।৫০ হাজারের বেশী কর্মসংস্হান সৃষ্টি হয়েছে । সারে ছয় লাখ মানুষ এই মূহুর্তে আইসিটি সেক্টরে চাকরি করছে।

গত এক যুগে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যেমন এগিয়ে গেছে তেমনি তার পুএের দূরদর্শী সিদ্ধান্তে এ দেশ প্রযুক্তি নির্ভর আধুনিক অর্থনীতির দেশ হয়ে উঠেছে ।

একসময় দেশের সমস্যা আমরা সমাধান করতে পারবো কিনা, দেশকে এগিয়ে নিতে পারবো কিনা, সে বিশ্বাস আমরা হারিয়ে ফেলেছিলাম। কিন্তু এখন আমাদের রাইজিং স্টার বলা হয়। ” নেক্সট ইলেভেন ” অর্থনীতির দেশের একটা আমরা।

কভিড’ ১৯ এর প্রভাবে মহামারি ও লকডাউনে বিশ্বজুড়ে এখন অনলাইন যোগাযোগ একমাত্র মাধ্যম। দেশের অফিস আদালত, টেন্ডার, ব্যাংক লেনদেন প্রভুতিতে যে অনলাইনের ব্যবহার তার একমাত্র অবদান সজীব ওয়াজেদ জয় ।

প্রকৃত পক্ষে বাংলাদেশে যে গনতান্ত্রিক ধারা বহমান তা বঙ্গবন্ধু পরিবারকে কেন্দ্র করেই আবর্তিত। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং তারই যোগ্য উত্তরসুরি সজীব ওয়াজেদ জয়ই এই তৃতীয় প্রজন্মের এখন নতুন নেতা।

তাই তাকে জন্মদিনে আমরা শুভেচ্ছা ও কৃতজ্ঞতা জানাই । শুভ জন্মদিন৷।

লেখক……
খলিলুর রহমান
সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।
সদস্য বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় ত্রান উপকমিটি।

এ জাতীয় আরো খবর
Developed by
error: Content is protected !!